March 3, 2021, 8:10 pm
Headlines:
ডিজিটাল ইকোনমি গড়তে স্টার্টআপরাই মূল চালিকাশক্তি হিসেবে ভূমিকা রাখছে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী অবৈধভাবে দখল হওয়া খালের দুই পাশ দখলমুক্ত করা হবে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী এটিএম শামসুজ্জামানের প্রতি শ্রদ্ধা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের The UN will support Bangladesh in the journey of Developing Nation প্রত্নস্থল সমূহকে সংরক্ষণ পূর্বক পর্যটন বান্ধব করে গড়ে তোলা হচ্ছে: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী নবায়নযোগ্য জ্বালানির প্রসারে সমন্বিত আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্ম প্রয়োজন: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী জরুরী চিকিৎসা সামগ্রী আমদানিতে শুল্ক মওকুফ দাবি বিপিএমসিএ’র বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ: প্রধানমন্ত্রী প্রকল্প বাস্তবায়নে দীর্ঘসূত্রিতা নেই: গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের সনদের বৈধতা : কোন আদেশ জারি করেনি শিক্ষা মন্ত্রণালয় 2,260 more Rohingyas reached Bhasan Char: 11,979 Rohingyas till date living safely ভ্যাকসিন প্রদানে স্বাস্থ্যখাত যথেষ্ট সফলতা দেখিয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী The Australian envoy appreciated Bangladesh’s success in controlling the Covid-19 situation BIMSTEC congratulated Bangladesh for graduation to a developing nation সিগন্যাল কোরের ৯ম কর্নেল কমান্ড্যান্ট অভিষেক অনুষ্ঠিত সেনাবাহিনী ফায়ারিং প্রতিযোগিতা-২০২১ সমাপনী অনুষ্ঠিত ডেল্টাপ্ল্যান সফল করতে আরো জ্ঞানার্জন দরকার: পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বিমান বাহিনী প্রধানের ০৬ দিনের সফরে শ্রীলংকার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ  বন্যপ্রাণী রক্ষায় সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে: পরিবেশ ও বনমন্ত্রী ১.৮০ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি উদঘাটন ভ্যাট গোয়েন্দার

Preventing child death from Pneumonia requires multi system approach: Health Experts

The Bangladesh Beyond
  • Published Time Wednesday, November 11, 2020,

Preventing child death from Pneumonia requires multi system approach: Health Experts

Dhaka, 11 November 2020:

Pneumonia is not a single entity, it is a combination of various health complications. It is
important to identify the causes of pneumonia, strengthen our health system and invest in low
cost local solutions to prevent pneumonia and pneumonia related deaths among children aging
below 5 years.

Speakers urged so today in an evidence sharing session with the Bangladesh Health Reporters’
Forum (BHRF) in observance of the World Pneumonia Day (12 November 2020), held at
icddr,b’s Mohakhali Campus. The event discussed about the disease burden of pneumonia and
ways to address pneumonia related premature deaths in Bangladesh.

The event was jointly organised by the Research for Decision Makers (RDM) Activity of icddr,b
and Data for Impact (D4I), and was supported by the United States Agency for International
Development (USAID). Fourteen health journalists from eminent media houses including Toufiq
Maruf, President, BHRF attended the session.

Prof. Dr. Md. Ruhul Amin, Paediatric Pulmonologist; Prof. Dr. Samir Kumar Saha, Executive
Director, Child Health Research Foundation (CHRF);Dr. Mohammad JobayerChisti, Senior
Scientist, Hospitals, Nutrition and Clinical Sciences Division and Dr. Shams El Arifeen, Chief of
Party, RDM Activity and Senior Director, Maternal and Child Health Divisionof icddr,b attended
the session as technical experts and exchanged their views with journalists on ways to prevent
these unfortunate deaths.

Dr. Ahmed Ehsanur Rahman, Associate Scientistaticddr,b informed the audience thataccording
to Bangladesh Demographic and Health Survey 2017, only 5% health facilities of Bangladesh
has the necessary preparedness to provide proper treatment to pneumonia. The survey also
found that not even half of the health facilities had oxyegn concentrator. Other oxygen sources
were not available in one-third of the health facilities. A basic tool like pulse oximetry to
measure oxygen saturation was available only in one-third of the district hospitals. Though
health seeking behaviour is still not developed among parents, without strengthening the
systems, the children being brought to health centres cannot be provided with effective and
timely treatment.

Prof. Dr. Ruhul Aminsaid that 18% of the children dying before completing 5 years of age are
dying from pneumonia. Still sensitivity around this disease is low. He stressed on ensuring

nutrition of children by exclusive breastfeeding, complementary feeding; looking into the
environmental factors such as pollution and timely treatment of children with respiratory
distress can prevent pneumonia and pneumonia-related deaths.
Prof. Dr. Samir Kumar Saha identified that it is crucial to know the total number of children
being affected by pneumonia every year, not only the death rate. For 50% of the pneumonia
cases, causes are still unknown. Without this information, in the long run, pneumonia cannot be
prevented. He stressed on combining efforts to strengthen the health systems so that parents
bring their children to seek treatment.

Dr. Mohammad Jobayer Chisti focused on having pulse oximetry devices in hospitals and
investing on low cost local innovations. He brought the example of shampoo bottle made low
cost bubble CPAP machine that reduced death by 75% during trial. He also stressed on focusing
on malnutrition as malnutrition causes 15 times more death among pneumonia effected
children.

Bangladesh has made significant progress in reducing child mortality and advancing the health
sector in the past two decades. Despite that, it is very unfortunate that about 24,300 children
die from pneumonia in Bangladesh every year, making 18% of the children dying before
completing 5 years of their age. The Bangladesh Demographic and Health Survey (BDHS) 2017
found that only 42% children aged less than 5 years with signs of lung infection were taken to
a hospital/health facility and only 34% had received an antibiotic. According to the Bangladesh
Health Facility Survey (BHFS) 2017, 45% of the pneumonia-related deaths are occurring at
health facilities, which strongly indicate the lack of readiness of the health facilities to provide
appropriate treatment for childhood pneumonia.

 

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন নিউমোনিয়ায় শিশু মৃত্যুহার হ্রাসে প্রয়োজন বহুপদ্ধতির সমন্বয়

ঢাকা, ১১ নভেম্বর, ২০২০

নিউমোনিয়া কেবলমাত্র একটি অসুখ নয়, নানামুখী শারীরিক জটিলতা থেকে এই রোগ হয়। আর তাই রোগের
প্রকৃত কারণ অনুসন্ধান, পুষ্টিহীনতা হ্রাস এবং স্বাস্থ্য ব্যবস্থার সার্বিক উন্নয়নের মাধ্যমে ৫ বছরের
কম বয়সী শিশুদের মধ্যে নিউমোনিয়া-জনিত মৃত্যুহার হ্রাস করা সম্ভব বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। বিশ্ব
নিউমোনিয়া দিবস (১২ নভেম্বর ২০২০) উপলক্ষে আইসিডিডিআর,বি-র মহাখালী ক্যাম্পাসে আয়োজিত
বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার'স ফোরামের সাথে একটি মতবিনিময় সভায় নিউমোনিয়া জনিত শিশু মৃত্যুরোধে
করণীয় বিষয়ক একটি আলোচনায় এই তথ্য পরিবেশিত হয়।

মার্কিন যুক্তরাষ্টের দাতা সংস্থা ইউএসএইডের সহায়তায় এই মতবিনিময় সভাটি আয়োজন করে
আইসিডিডিআর,বি-র রিসার্চ ফর ডিসিশন মেকার্স (আরডিএম) প্রকল্প এবং ডাটা ফর ইম্প্যাক্ট
(ডিফরআই)। বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার'স ফোরামের সভাপতি তৌফিক মারুফ, সাধারণ সম্পাদক রাশেদ রাব্বি-
সহ ১৪ জন সাংবাদিক এই সভায় অংশগ্রহন করেন।

শিশু বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ড. মো. রুহুল আমিন; চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী
পরিচালক প্রফেসর ড. সমীর কুমার সাহা; আইসিডিডিআর,বি-র নিউট্রিশন এন্ড ক্লিনিক্যাল সার্ভিসেস-এর
সিনিয়র সায়েন্টিস্ট ড. মোহাম্মদ জোবায়ের চিশতী এবং আরডিএম এক্টিভিটির চিফ অফ পার্টি ও
আইসিডিডিআর,বি-র মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্য ডিভিশনের সিনিয়র ডিরেক্টর ড. শামস এল আরেফিন সভায়
উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে নিউমোনিয়া জনিত শিশু মৃত্যুরোধ বিষয়ে মতামত বিনিময় করেন।

আইসিডিডিআরবি,র এসোসিয়েট সায়েন্টিস্ট ড. আহমেদ এহসানুর রহমান বলেন, ২০১৭ সালের অনুষ্ঠিত
বাংলাদেশ ডেমোগ্রাফিক এন্ড হেলথ সার্ভে অনুযায়ী বাংলাদেশের মাত্র ৫% স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিউমোনিয়ার
পুর্নাংঙ্গ চিকিৎসা সক্ষমতা আছে। উক্ত সমীক্ষায় আরো দেখা যায়, ৫০% স্বাস্থ্য কেন্দ্রে অক্সিজেন
কন্সেন্ট্রেটর নেই। এক-তৃতীয়াংশ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে অক্সিজেনের অন্যান্য সোর্সও অনুপস্থিত। মাত্র এক-
তৃতীয়াংশ জেলা হাসপাতালে পালস অক্সিমিটার আছে। অভিভাবকদের মধ্যেও সন্তানকে চিকিৎসার জন্য
স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আনার প্রবণতা দুর্বল, স্বাস্থ্যকেন্দ্র গুলোতে সেবা নিশ্চিত করতে হলে স্বাস্থ্য
ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করতে হবে, বলে মনে করেন তিনি।

প্রফেসর ড. মো. রুহুল আমিন বলেন ৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে মৃত্যুহারের ১৮% নিউমোনিয়া জনিত
মৃত্যু। এই মৃত্যুহার হ্রাসে তিনি শিশুকে ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শুধুমাত্র মায়ের দুধ খাওয়ানো এবং দুই বছর
পর্যন্ত মায়ের দুধ খাওয়ানো চালিয়ে যাওয়া, ৬ মাসের পর থেকে মায়ের দুধের পাশাপাশি ঘরে তৈরী পুষ্টিকর
খাবার খাওয়ানো, পরিবেশ দূষণ হ্রাস করা এবংশ্বাসকষ্ট হলে তৎক্ষণাৎ নিকটস্থ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে
যাওয়ার উপর প্রচারণা চালাতে সাংবাদিকদের অনুরোধ করেন।

ড. সমীর কুমার সাহা বলেন যে শুধু মৃত্যুহার নয়, কত সংখ্যক শিশু নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে সেই সংখ্যা
জানা গুরুত্বপূর্ণ। তিনি আরো বলেন যে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৫০% রোগীর ক্ষেত্রে নিউমোনিয়ার কারণ
জানা যায় না। এই তথ্য ছাড়া ভবিষ্যতে নিউমোনিয়ার চিকিৎসা প্রদান কঠিন হয়ে যাবে বলে তিনি মনে। শিশু
নিউমোনিয়া হ্রাসে স্বাস্থ্য ব্যবস্থার জন্য সকলের সম্মিলিত প্রয়াসের উপর বিশেষভাবে গুরুত্বারোপ করেন
এই বিজ্ঞানী।

ড. মোহাম্মদ জোবায়ের চিশতী হাসপাতালে পালস অক্সিমিটার, স্বল্পমূল্যের দেশীয় অক্সিজেন স্বল্পতা দূর
করার বিষয়ে আলোকনা করেন। উদাহরণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন প্লাস্টিক বোতল দিয়ে তৈরী বাবল
সিপ্যাপ নিউমোনিয়া জনিত শিশু মৃত্যুহার ৭৫% পর্যন্ত কমিয়ে আনতে সক্ষম। তিনি আরো বলেন, অপুষ্টির
শিকার শিশুদের মধ্যে নিউমোনিয়া-জনিত মৃত্যুর প্রবণতা ১৫ গুন বেশি বলে গবেষণায় দেখা যায়।
সভায় সাংবাদিকরা নিউমোনিয়া জনিত মৃত্যু, নিউমোনিয়ার কারণ ও প্রতিকার সংক্রান্ত নানান বিষয়ে তাদের
প্রশ্ন ও মতামত তুলে ধরেন।

গত দুই দশকে, শিশু মৃত্যু হার হ্রাসে এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্যখাতে বাংলাদেশ প্রভূত উন্নতি সাধন করেছে।
তারপরেও, দুঃখজনক হলেও সত্য যে, দেশে প্রতিবছর ২৪,৩০০ জন শিশু নিউমোনিয়ায় মৃত্যুবরণ করে।
বাংলাদেশ ডেমোগ্রাফিক এন্ড হেলথ সার্ভে ২০১৭ অনুযায়ী, ফুসফুসে সংক্রমণ দেখা দেয়া ৫ বছরের কমবয়সী
শিশুদের মধ্যে মাত্র ৪২ শতাংশকে নিকটস্থ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বা হাসপাতালে নেওয়া হয় এবং মাত্র ৩৪ শতাংশ
এন্টিবায়োটিক ওষুধ গ্রহণ করে। বাংলাদেশ হেলথ ফ্যাসিলিটি সার্ভে ২০১৭ অনুযায়ী নিউমোনিয়া জনিত শিশু
মৃত্যুর ৪৫ শতাংশ ঘটেস্বাস্থ্য কেন্দ্রে। স্বাস্থ্যকেন্দ্র সমূহের চিকিৎসাজনিত অপ্রতুলতার একটি চিত্রও
এ থেকে বোঝা যায়।

Social Medias

More News on this Topic
01779911004