April 17, 2021, 6:06 pm
Headlines:
কবরী চাচি ছিলেন অভিভাবকের মতো : শামীম ওসমান ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত রংপুরে অবৈধ ঔষুধ রাখায় লক্ষ টাকা জরিমানা ১০৯ বছর বয়সী বৃদ্ধের জবানবন্দি রেকর্ড করে অভিযোগ আমলে নিলেন ওসি লালমনিরহাটে ভুট্টা পাতার হাট! কালিয়াকৈরে বসত-বাড়িতে হামলা ভাংচুর ও লুটের অভিযোগ, আহত ১ ময়মনসিংহে ৫ টাকায় ইফতার, চলবে মাসজুড়ে গুরুবাস: পর্যটনের নতুন স্কুল অব থট ফুডপান্ডার কর্মচারীকে মারধর : প্রভাবশালী অভিযুক্তকে ত্বরিৎ গ্রেফতার ঢাদসিকের ৯ আদালতের অভিযান: ২২ মামলায় ৬৭ হাজারের অধিক জরিমানা ইস্তাম্বুলে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদ্‌যাপিত মুজিবনগর সরকারের লক্ষ্য বাস্তবায়ন করছে শেখ হাসিনার সরকার : শ ম রেজাউল করিম ১৭ এপ্রিল কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন Civil Society urged PM to speak for “A Global Regime on Climate Displacement” in Leaders’ Summit on Climate Effective social dialogues key to recovery of labour market during COVID-19 : Experts কিংবদন্তী অভিনেত্রী কবরী চিরস্মরণীয়-বরণীয় : তথ্যমন্ত্রী মুম্বাই-এ ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদ্‌যাপন কবরীর মৃত্যুতে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীবর্গের শোক হেফাজত কোনোভাবেই ছাড় পাবে না : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী খুলনায় করোনাকালে কর্মহীনদের মাঝে খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির উদ্বোধন

বেড়ায় হতাশ পেঁয়াজ চাষি

The Bangladesh Beyond
  • Published Time Friday, April 10, 2020,

 

অনুকূল আবহাওয়া ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হওয়ায় এ মৌসুমে পাবনার বেড়ায় পেঁয়াজের ভালো ফলন হয়েছে। কিন্তু পাইকারি হাটে-বাজারে

পেঁয়াজের দাম না পাওয়ায় হতাশ হয়ে পড়েছেন পেঁয়াজ চাষিরা। দাম না বাড়লে পেঁয়াজের উৎপাদন খরচও ঘরে আসবে না। এদিকে, কৃষক

ইতিমধ্যেই উৎপাদিত পেঁয়াজের ৯০ ভাগ ঘরে তুলেছে। সার ও কীটনাশক ব্যবসায়ীদের থেকে নেওয়া ঋণ পরিশোধসহ সারা বছরের সংসার

খরচ চালানোর চিন্তায় কৃষক দিশেহারা হয়ে পড়েছে। অপরদিকে, গত মৌসুমে দেশের বাজারে পেয়াজের অগ্নিমূল্য, পেঁয়াজের রেকর্ড পরিমান

মূল্যবৃদ্ধি ও অস্বাভাবিক চাহিদা হওয়ায় এবারের পেঁয়াজ চাষ মৌসুমে বেড়ার চাষিরা অন্য ফসলের চাষ কমিয়ে দিয়ে রেকর্ড পরিমান জমিতে

পেঁয়াজ চাষ করেছিল।
বেড়া কৃষি অধিদফতর অফিস সূত্রে জানা যায়, এ মৌসুমে বেড়ায় মুলকাটা পেঁয়াজসহ হালি পেঁয়াজ চাষ করা হয়েছে প্রায় ৫ হাজার হেক্টর

জমিতে যা গত মৌসুমের চেয়ে প্রায় ২০ ভাগ বেশী জমিতে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। গত মৌসুমে কৃষক পেঁয়াজের ভালো দাম পাওয়ায় অন্যান্য

ফসলের চাষাবাদ কমিয়ে দিয়ে পেঁয়াজ চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছে বলে বেড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মশকর আলী জানান।
পঁয়াজের পাইকারী হাট বেড়া সিএন্ডবি হাটে গত মঙ্গলবার গিয়ে দেখা যায়, পেঁয়াজের যথেষ্ট আমদানী রয়েছে। আমদানী বেশী হলেও ক্রেতার

সমাগম কম। হাটে পেঁয়াজ বিক্রি করতে আসা সাঁথিয়ার আফড়া গ্রামের আব্দুল হাই মাস্টারের সঙ্গে কথা হয়, তিনি বলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ,

অতিবৃষ্টি ও শিলাবৃষ্টি না হওয়ায় এবার আশানুরোপ ফলন হয়েছে। এবার বিঘা প্রতি গড়ে ৪০ মণ ফলন পেয়েছি। কিন্তু বাজারে ক্রেতা না

থাকায় পেঁয়াজের দাম একেবারেই কমে গেছে।
পেঁয়াজ চাষি সোহেল আহম্মেদ জানান, প্রতিবছর এ সময়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা হাটে এসে পেঁয়াজ কিনে নিয়ে যায়।

ক্রেতা বিক্রেতার হাক-ডাকে সরগরম হয়ে থাকে হাট। উপজেলার কোন হাটে গত কয়েক হাট ধরে পেঁয়াজ বিক্রি করতে এসেও বড় পেঁয়াজ

ব্যবসায়ীর দেখা পাইনি।
সিএন্ডবি পেঁয়াজ হাটের আড়ৎদার গোলাম রব্বানী জানান, প্রতি বছর এ সময় আমাদের এই (বেড়া) হাটে প্রায় ছোট বড় শতাধিক মহাজন

পেঁয়াজ কেনার জন্য আসতো এবং প্রতি হাটে কয়েক কোটি টাকার পেঁয়াজ তারা কিনতেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত বাইরের কোন পেঁয়াজ ব্যবসায়ী

হাটে পেঁয়াজ কিনতে আসেনি।
পেঁয়াজ ব্যবসায়ী আমীর হামজা জানান, আমি ও আমার মত অনেক পেঁয়াজ ব্যবসায়ী প্রতি বছর মৌসুমের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ঢাকার

ফরাজগঞ্জ, বাবু বাজার ও চট্টগ্রামের খাতুমগঞ্জসহ কয়েকটি পেঁয়াজের পাইকারী মোকামে পেঁয়াজ বিক্রি করে থাকি। শহ গুলোতে পর্যাপ্ত ক্রেতা

না থাকায় পেঁয়াজ আমদানী ও কেনা বেঁচা স্থবির হয়ে পড়েছে। প্রায় বন্ধ হয়ে আছে পেঁয়াজের মোকাম গুলো। করোনার প্রভাব কাটিয়ে

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তবেই পেঁয়াজের ব্যবসা শুরু করা সম্ভব হবে বলে মনে করেন বাঁধের হাটের সুনিল দে।

সিএন্ডবি হাটে পেঁয়াজ বিক্রি করতে আসা পেঁয়াজ চাষি খালেক জানান, আমি প্রতি বছর ৩ বিঘা জমিতে পেঁয়াজ চাষ করে থাকি। গত

মৌসুমে ভাল দাম পাওয়ায় এবার নিজের ৩ বিঘাসহ আরও ৪ বিঘা লীজ নিয়ে মোট ৭ বিঘা জমিতে পেঁয়াজের চাষ করেছি। প্রতি বিঘা

জমিতে পেঁয়াজ চাষ ও ঘরে তোলা পর্যন্ত প্রায় ২৮ থেকে ৩০ হাজার টাকার মত খরচ পড়ে। বর্তমানে পেঁয়াজের পাইকারী মূল্য রকম ভেদে

হাজার টাকা থেকে ১২শ’ টাকা মণ দরে বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতা না থাকায় চাহিদা কম এবং চাহিদা কম থাকায় পেঁয়াজের দামও কমে যাচ্ছে।

Social Medias

More News on this Topic
01779911004